মেনু নির্বাচন করুন

নির্বাহী পরিচালক

কে.বি.এম ওমর ফারুক চৌধুরী



কে.বি.এম ওমর ফারুক চৌধুরী ১৯৫৬ সালে সাতক্ষীরা জেলায় আশাশুনী উপজেলার প্রতাপনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।তার পিতার নাম মরহুম এ, এম শামসুল হক চৈৗধুরী এবং মাতার নাম মরহুম আফিয়া বেগম ।  জনাব শামসুল হক চৌধুরী একজন স্কুল শিক্ষক ছিলেন।

চাকুরীতে যোগদানের পূর্বে তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিসাব বিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।


চাকুরীকালীন সময়ে তিনি এল.এল.বি, ইংরেজী সাহিত্যে এম.এ ও অর্থনীতি বিষয়ে এম.এস.এস ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৮৩ সালে বিসিএস প্রশাসন (বিশেষ ব্যাচ) ক্যাডারে সহকারী কমিশনার হিসাবে যোগদান করেন। দীর্ঘ বর্নাঢ্য চাকুরীজীবনে  মাঠ পর্যায়ে ও সচিবালয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে চাকুরী করেন। উপজেলা ম্যাজিষ্ট্রেট হিসেবে ০৩ উপজেলায় দায়িত্ব পালন করেন। জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারী পরিচালক স্থানীয় সরকার ও ০৪ উপজেলায় নির্বাহী অফিসার হিসাবে চাকুরী করেন।


তিনি জাতীয় পরিকল্পণা ও উন্নয়ন একাডেমীর প্রধান প্রশিক্ষক, বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উপ-পরিচালক পদে কর্মরত ছিলেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট হিসাবে তিনি বাঘের হাট ও নড়াইল জেলায় দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বাংলাদেশ সংসদ সচিবালয়ের  পরিচালক (রিপোটিং) পদে দায়িত্ব পালন করেন। উপ-সচিব হিসাবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে ০১টি প্রকল্পে প্রকল্প পরিচালকের  দায়িত্ব  পালন করেন ও সর্বশেষ মাঠ পর্যায়ে বরিশালের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) হিসাবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন।


২০০৮ সালে পদোন্নতির  প্রাপ্তির পর তিনি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরোর মহাপরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব পদেও কর্মরত ছিলেন।


যুগ্ম-সচিব হিসেবে সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে  প্রেষণের নির্বাহী পরিচালক শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল-নাহিয়ান ট্রাষ্ট (বাংলাদেশ) এ যোগদান করেন।



২০১৫ সালে স্বাভাবিক নিয়মে অবসর গ্রহণের পর বর্তমান পদে চুক্তি ভিত্তিক নিয়োজিত আছেন। তিনি দেশ-বিদেশে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ও সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন।


তিনি বিভিন্ন দেশ তথা- আমেরিকা, ভিয়েতনাম, চীন, নেপাল, ভারত, মালয়েশিয়া, জাপান, হংকং ,সিঙ্গাপুর, ও সৌদি আরব ভ্রমণ করেন।


২০১৬ ও ২০১৮ সালে পবিত্র হজ্জ্ব ব্রত পালন করেন। তাছাড়া তিনি  পবিত্র ওমরাহও পালন করেন। তিনি বিবাহিত ও দুই কণ্যা সন্তানের জনক।